আমাদের বাউফলরাজনীতি

মনোনয়নপত্র গ্রহণ: আবারো বিজয়ী হতে চান আ স ম ফিরোজ

 আবারো বিজয়ী হতে চান আ স ম ফিরোজ

বাউফল থেকে রেকর্ড সপ্তমবারের মতো আ স ম ফিরোজকে নির্বাচিত করে শেখ হাসিনাকে আসনটি উপহার দিতে উদগ্রীব বাউফলের জনতা। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে গতকাল এমন কথা জানিয়েছেন বাউফল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মোতালেব হাওলাদার।

তিনি জানান, ১৯৭০ সালে জাতীয় পরিষদ নির্বাচনী প্রচারে বঙ্গবন্ধু বাউফল এসে আওয়ামী লীগকে জয়যুক্ত করার আহ্বান জানিয়েছিলেন। তার আহ্বানে সাড়া দিয়ে বাউফলের জনতা আজও আওয়ামী লীগকে মনে প্রাণে ভালোবাসে। কেবলমাত্র ২০০১ সালে দেশি-বিদেশিদের ষড়যন্ত্রের কারণে এ আসনটি আওয়ামী লীগের হাতছাড়া হয়েছিল।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে এখন পর্যন্ত ৬ জন প্রার্থী আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। তারা হলেন, জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ, বাংলাদেশ কৃষক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী খোন্দকার শামসুল হক রেজা, পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বাউফল পৌরসভার মেয়র জিয়াউল হক জুয়েল এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় উপকমিটির সহসম্পাদক সাবেক ছাত্রলীগ নেতা জোবায়দুল হক রাসেল। যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রাশেদুল হাসান সুপ্ত, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য মাখন চন্দ্র গাইন।

১৯৭৯ সালে সর্বকনিষ্ঠ এমপি হিসেবে আ স ম ফিরোজ নির্বাচিত হন। সে থেকেই বাউফলের প্রতিটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের ওয়ার্ড পর্যায়ে শক্তিশালী কমিটি গঠন করে দলের ভীত মজবুত করেন তিনি।

তার ফলশ্রæতিতে ১৯৮৬, ১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০৮ এবং ২০১৪ সালে তিনি এমপি নির্বাচিত হন। ৬ বার সাংসদ নির্বাচিত হয়ে প্রজ্ঞাবান রাজনীতিবিদ ফিরোজ তৃণমূল পর্যায়ে দলকে আরো শক্তিশালী করেছেন।

সংগ্রহ: ভোরের কাগজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *