আমাদের বাউফলবগা

বাউফলে ইফতার খাওয়ানোর পরে তরমুজ ব্যবসায়ীকে লুট করলো মলম পার্টি

বাউফলে মলম পার্টির খপ্পরে পড়ে মো. রবিউল ইসলাম নামে এক তরমুজ ব্যবসায়ীকে অজ্ঞান অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে রেজাউল নামে এক ব্যক্তি তাকে ভর্তি করেন।

জানা গেছে, চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নের চরমিয়াজান গ্রামের মৃত আফছের হাওলাদারের ছেলে তরমুজ ব্যবসায়ী রবিউল তরমুজ বিক্রি করে মঙ্গলবার বাস যোগে বরিশাল থেকে নিজ বাড়ী বাউফলে ফিরছিলেন।

ইফতারের সময় হলে বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়কের পাগলা নামক বাস ষ্ট্যান্ডের কাছাকাছি এলে এক লোক তাকে ইফতার করার জন্য খেজুর ও পানি খেতে দেয়।

কিছুক্ষন পরেই বাসের সীটে অজ্ঞান হয়ে পড়েন সে। বিষয়টি বগা নামক স্থানে এসে বাসের হেলপারের নজরে আসে। এ সময়ে হেলপারের কাছে শুধু নাম এবং গ্রামের নাম বলতে সক্ষম হয়েছিল সে।

পরে কাগুজিরপুল বাস ষ্ট্যান্ডে তাকে নামিয়ে দিলে রেজাউল নামে ওই বাসের এক যাত্রী রাত ৮ টার দিকে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন। পরে ফেসবুকের মাধ্যমে স্বজনরা খবর পেয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন।

রবিউল বলেন, তরমুজ বিক্রির ৩ লক্ষ টাকা ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে বাড়ী পাঠিয়েছি শুধু যাতায়াত খরচের জন্য ৭ হাজার টাকা সাথে ছিল। ওই টাকা এবং ১৫ হাজার টাকা দামের একটি এন্ড্রয়ড মোবাইল সেট নিয়ে গেছে মলম পার্টি।

চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নের ওর্য়াড মেম্বার আবুল বশার জানান, তরমুজ ব্যবসায়ীকে অজ্ঞান অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *