আমাদের বাউফলবাউফল

বাউফলে তীব্র লোডশেডিং, দুর্ভোগে অতিষ্ঠ উপজেলাবাসী

জাতীয় গ্রিড থেকে পর্যাপ্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ না পাওয়া এবং ভোল্টেজ ড্রোপ থাকায় পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলায় বিদ্যুতের তীব্র লোডশেডিং শুরু হয়েছে।

এতে জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে ওঠেছে। এদিকে এই লোডশেডিংয়ের কারণে উপজেলার উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমানের পরিক্ষার্থীরা বিপাকে পড়েছে। তাদের পরীক্ষা প্রস্তুতিতে ব্যাঘাত ঘটছে।

গত পাঁচদিন ধরে তীব্র লোডশেডিংয়ের এর কবলে উপজেলার বাসিন্দারা। যা ৩০ জুন পর্যন্ত বিদ্যমান থাকবে বলে জানা গেছে। এদিকে ৩০ জুন থেকে সারাদেশে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু হবে।

লোডশেডিংয়ে অতিষ্ঠ বাসিন্দারা বলেন, প্রতিদিন সকাল ৭টা থেকে ৮টা, বেলা ১১টা থেকে ১২টা, দুপুর ৩টা থেকে সাড়ে ৪টা, সন্ধ্যা ৭টা থেকে ৮টা এবং রাত ১২টা থেকে ২টা পর্যন্ত সিডিউল অনুযায়ী লোডশেডিং হচ্ছে।

লোডশেডিং ও তীব্র গড়মে তাদের জীবন অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে।

এছাড়াও, এতে বিদ্যুৎ নির্ভর ব্যবসায়ীরাও বিপাকে পড়েছে। বিদ্যুৎ না থাকায় ফ্রিজে রাখা ফার্মেসির ওষুধ, ফিজিং নির্ভর খাদ্যসামগ্রী নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

এ বিষয়ে পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বাউফল জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মজিবুর রহমান বলেন, ভোল্টেজ ড্রোপের কিছু সমস্যা রয়েছে এবং জাতীয় গ্রীড থেকে চাহিদামতো বিদ্যুৎ পাওয়া যাচ্ছে না।

চাহিদা ১৫ মেগাওয়াট বিদ্যুতের থাকলেও ৭ থেকে ৮ মেগাওয়াট পাওয়া যাচ্ছে। কাজ চলমান রয়েছে। আগামী ১ জুলাই থেকে লোডশেডিং স্বাভাবিক হয়ে যাবে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *