আন্তর্জাতিক

মারাত্মক কূটনৈতিক টানাপড়েনে আমেরিকা-তুরস্ক

তুরস্কের বিচারমন্ত্রী আবদুল হামিদ গুল এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেইমান সোইলুর বিরুদ্ধে মার্কিন সরকারের পক্ষ থেকে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার ঘটনায় ওয়াশিংটনের সঙ্গে আংকারার মারাত্মক কূটনৈতিক টনাপড়েন দেখা দিয়েছে। দুই মন্ত্রীর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিরুদ্ধে দ্রুত প্রতিশোধমূলক পদক্ষেপ নেয়ার অঙ্গীকার করেছে তুরস্ক।

তুরস্কে সন্ত্রাসী তৎপরতায় জড়িত থাকার অভিযোগে একজন মার্কিন যাজককে আটকের প্রতিবাদে তুরস্কের দুই মন্ত্রীর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয়। বুধবার হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র সারা স্যান্ডার্স এ খবর জানিয়ে ওই যাজক আটকের ঘটনাকে ‘অন্যায়’ বলে অভিহিত করেন। স্যান্ডার্স বলেন যাজক আটকের ঘটনায় তুরস্কের এ দুই মন্ত্রী অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন।

যাজক অ্যান্ড্রু ব্রানস
২০১৬ সালে যাজক অ্যান্ড্রু ব্রানসনকে প্রথম আটক করা হয় এবং গত সপ্তাহে তাকে গৃহবন্দী করা হয়। কিন্তু তাতে দু দেশের মধ্যে উত্তেজনা কমার চেয়ে বরং বেড়ে যায় এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্ট তুরস্ককে নিষেধাজ্ঞার হুমকি দেননিষেধাজ্ঞার আওতায় আমেরিকায় তুরস্কের দুই মন্ত্রীর গচ্ছিত সম্পদ বাজেয়াপ্ত করার পাশাপাশি তাদের সঙ্গে যেকোনো আর্থিক ও বাণিজ্যিক লেনদেন করার ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

এদিকে, তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, আমেরিকার এ পদক্ষেপের কারণে দু দেশের মধ্যকার সম্পর্ক মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। দু দেশের মধ্যকার এ অচলাবস্থাকে আধুনিক ইতিহাসে মারাত্মক সংকট বলে মনে করা হচ্ছে।#

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *