আন্তর্জাতিক

অনলাইনে বিক্রি হচ্ছে গোমূত্র

গোমূত্রের চাহিদা বেড়েই চলেছে হিন্দু প্রধান দেশ ভারতে। চাহিদার কথা মাথায় রেখেই গোমূত্র সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও বিক্রির বিষয়েও গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। অনলাইনের যুগে গোমূত্রও খুব বেশিদিন অফলাইনে থাকতে পারলো না। এখন দেশটির অনলাইনগুলোতে বিক্রি হচ্ছে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের গোমূত্র।

গোমাতাসেবা(www.gomataseva.org), আইএমসিবিজনেস(www.imcbusiness.com) এবং ভেডিক বাণী(www.vedicvaani.com) নামের বিভিন্ন অনলাইন সাইটে বিক্রি হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের গোমূত্র।

গোমাতাসেবা’য় ‘গোমূত্র আর্ক’ নামের একটি পণ্যের ব্যাখ্যায় বলা হয়েছে, এটি শরীরের কোলেস্টেরল লেভেল এবং চর্বি কমাতে সাহায্য করে। এটা মস্তিষ্ক ও হৃৎপিণ্ডকে শক্তিশালী করে। এছাড়া ক্ষতিগ্রস্ত টিস্যু ও সেলগুলোকে সবল করে।

আইএমসি’তে ‘হারবাল গোমূত্র’ নামের একটি পণ্যে উল্লেখ করা হয়েছে, গোমূত্র প্রাকৃতিক জীবাণু নাশক, মানসিক উত্তেজনা নাশক, ছত্রাক নাশক, ব্যাকটেরিয়া নাশক এবং অ্যালার্জি নাশক। তাই এটাকে বলা হয় সঞ্জীবনী।

ভেডিক বাণী’তে পিউর গোমূত্র নামের একটি পণ্যতে বলা হয়েছে, এটি অনেক ভারতীয়ের প্রতিদিনের পূজার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এটা মানুষকে আধ্যাত্মিকতার প্রতি আকৃষ্ট হতে সহযোগিতা করে।

প্রসঙ্গত, গত জুলাই মাসে টাইমস অব ইন্ডিয়া’য় প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারতের রাজস্থানে গোমূত্রের চাহিদা এতটাই বেশি যে দুধের থেকেও তা বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে। রাজ্যটির পাইকারি বাজারে দুধ লিটার প্রতি ১৫-৩০ টাকা এবং মূত্র লিটার প্রতি ২২-২৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

গোমূত্রের দাম বাড়ার কারণ হিসেবে উল্লেখ করা হয়, যেসব কৃষক কীটনাশকের পরিবর্তে গোমূত্র ব্যবহার করে, তাদের কাছেও এর চাহিদা ব্যাপক। তারা তাদের ফসলকে পোকামাকড়ের আক্রমণ থেকে রক্ষা করতে গোমূত্র ছিটায়। অনেক মানুষ ধর্মীয় অনুষ্ঠানেও গোমূত্র ব্যবহার করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *