বিনোদন

অভিনেত্রীদের পারিশ্রমিকের পরিমাণ কার কত?

শোবিজ অঙ্গনের প্রিয় তারকাদের বিষয়ে সাধারণ ভক্তকুলের জানার আগ্রহটা কোন অংশে কম না। তারা কী খায়- কোথায় ঘুমায়, কার সঙ্গে কে প্রেম করছে দর্শকদের এসব জানার আগ্রহ প্রবল। আজ পাঠকদের শুধু জানাবো- অভিনেত্রীদের পারিশ্রমিকের পরিমাণ কার কত?

মেহজাবিন:
‘বড় ছেলে’ নাটকে অভিনয় করে মেহজাবিনের জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। এরপর থেকে বেশ সম্মাননা নিচ্ছেন তিনি। শোনা যাচ্ছে, অভিনেত্রীদের মধ্যে বর্তমানে সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক নিয়ে থাকেন মেহজাবিন। এক ঘন্টার নাটকের জন্য প্রায় ৫০ হাজার এবং টেলিফিল্মের জন্য তার পারিশ্রমিক ওঠে ৭০ হাজার টাকা পর্যন্ত। তিনি বিজ্ঞাপনে নেন চার থেকে পাঁচ লাখ টাকা। চরিত্র বুঝে আরো বেশি চান এই অভিনেত্রী।

সাদিয়া ইসলাম মৌ:
এক ঘন্টার নাটকের জন্য ৫০ হাজার পারিশ্রমিক নিয়ে থাকেন মৌ। তবে টেলিফিল্মে নেন ৭০ হাজার টাকা। নাটকে বড় জোর দুই দিন সময় দেন এই অভিনেত্রী। টেলিফিল্মে সর্বোচ্চ তিন দিন। তবে কোনো কোনো বিজ্ঞাপনে ১০ লাখও নিয়েছেন বলে কথিত আছে।

বিপাশা হায়াত:
নাটকে অভিনয় করেন না বললেই চলে। তার পারিশ্রমিকের হিসেবটা অনেকটা স্বামীর (তৌকির) মত। ৪০ থেকে ৫০ হাজার নিয়ে থাকেন একক নাটকে।

অপি করিম:
অপি করিম খুবই কম কাজ করে থাকেন। এক ঘণ্টার নাটকের বেলায় তিনিও কম নেন না। প্রায় ৪০-৫০ হাজারের কাছাকাছি টাকা নিয়ে থাকেন অপি।

তারিন:
অভিনেত্রী তারিন। তিনি এক ঘণ্টার নাটকের জন্য নেন ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা।

তিশা:
এক ঘণ্টার নাটকের জন্য ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকা নিয়ে থাকেন। তবে ধারাবাহিকে প্রতিদিনের জন্য ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা। তাছাড়া বেশিরভাগ বিজ্ঞাপন থাকে তার স্বামীর পরিচালনার, তাই সেখানে সমঝোতায় কাজ করেন এই অভিনেত্রী।

শখ:
শখ এক ঘণ্টার নাটকের জন্য ৩৫ হাজার টাকা নিয়ে থাকেন আর টেলিছবির জন্য ৫০ হাজার টাকা নেন। ধারাবাহিক নাটকে প্রতিদিনের জন্য নেন ১০ হাজার টাকার মত। বিজ্ঞাপনে ৫ থেকে ৮ লাখ টাকা নিয়ে থাকেন বলে শোনা গেছে।

মৌসুমী হামিদ:
এক ঘন্টার নাটকের জন্য মৌসুমী নেন ২০ হাজার আর দু’দিনের কাজের জন্য নেন ৩০ হাজার টাকা। ধারাবাহিকে প্রতিদিন ৮ থেকে ১০ হাজার টাকা পান তিনি।

জাকিয়া বারী মম:
এক ঘণ্টার নাটকের জন্য নেন ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকার মত। ধারাবাহিক নাটকের জন্য নেন ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা প্রতিদিনের হিসেবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *