মতামত

‘বিএনপি চেষ্টা করুক না প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করার’

বিএনপি চেষ্টা করুক না প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করার

খন্দকার আলমগীর হোসাইনঃ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কেউ দেখা করতে আসলে বাধা দেবো না। আপনারা যে যা-ই বলেন, আমি আর যাবো না। আমারও আত্ম-সম্মানবোধ আছে। খালেদা জিয়ার ছেলে মারা যাওয়ার পর আমি গেলাম, আমার মুখের ওপর দরজা বন্ধ করে দিয়ে আমাকে ঢুকতে দিল না। সেদিন থেকে সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আর তো ওদের সঙ্গে আমি অন্তত বসব না। আর কোনো আলোচনা হবে না। প্রশ্নই ওঠে না।
প্রধানমন্ত্রীর কথা থেকে এটা স্পষ্ট তিনি নিজে বিএনপির সঙ্গে কথা বলতে উদ্যোগ নেবেন না; তবে, বিএনপি দেখা করতে চাইলে তিনি বাধা দিবেন না। প্রধানমন্ত্রী এই বক্তব্যের সূত্র ধরে আলোচনার দরজা খুলতে পারে।
বিএনপি যদি এখন সত্যি রাজনীতিতে সৌহার্দ ফিরিয়ে আনতে চায়, তাহলে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে ১০/১৫ জনের একটি টিম প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ চাইতে পারেন।যোগাযোগ করে প্রধানমন্ত্রীর সাড়া না পাওয়া গেলে বিএনপির জন্য ভালো, পাওয়া গেলেও ভালো।
রাজনীতিতে অযথা উত্তেজনার উপাদান না ছড়িয়ে, এভাবে শান্তির সুবাতাস ছড়ানোর একটি চেষ্টা করে দেখুক না না বিএনপির নেতৃত্ব। বাংলাদেশে গত ৫ বছরে কোনো ধরনের রাজনৈতিক সহিংসতা না হওয়ায় দেশ অর্থনৈতিকভাবে এগিয়েছে। সহিংসতা হলে উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হয় , সব পক্ষকে তা বুঝতে হবে।
বিএনপির উচিত হবে গণতন্ত্রকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সব ধরনের রাগ-অভিমান রেখে আলোচনার চেষ্টা করা। যদিও বিএনপি গত ৫ বছরে আলোচনার কথা বলে বর্তমান সরকারের কাছ থেকে কোনো ধরনের সাড়া পায়নি। তার পরেও বিএনপিকেই এবার এগিয়ে আসতে হবে, কারণ খাদের কিনারে দাঁড়িয়ে আছে তারাই।

লেখকঃ সাংবাদিক নেতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *