রাজনীতি

১৩৭ সদস্যের নির্বাচন পরিচালনা কমিটি আওয়ামী লীগের

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ১৩৭ সদস্যের জাতীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটি করেছে আওয়ামী লীগ।

এ কমিটির চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা, কো-চেয়ারম্যান এইচটি ইমাম ও সদস্য সচিব ওবায়দুল কাদের।

কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ ও উপদেষ্টামণ্ডলীল সব সদস্য ছাড়াও ১৩৭ সদস্যের কমিটিতে সহযোগী ৭ সংগঠনের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক রয়েছেন।

সংগঠনগুলো হলো বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ, যুবলীগ, কৃষক লীগ, তাঁতী লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুব মহিলা লীগ।

শনিবার (সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় গণভবনে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

আওয়ামী লীগের জাতীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটির বাকি সদস্যরা হলেন, উপদেষ্টামন্ডলীর সকল সদস্য, সভাপতিমন্ডলীর সকল সদস্য, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য, সকল সাংগঠনক সম্পাদকরা ,দপ্তর সম্পাদক, উপদপ্তর সম্পাদক, উপপ্রচার সম্পাদক, কোষাধ্যক্ষ কার্যকরী সংসদের সকল সদস্য, সহযোগী সংগঠনের সহসভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা।

বৈঠকের এজেন্ডায় ৩০ অক্টোবর থেকে ২৯ জানুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠানের সময়সীমা নির্ধারণ করে আওয়ামী লীগের জাতীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটিতে মোট ভোটার সংখ্যা ১০ কোটি ৪০ লাখ ৫১ হাজার ৮৮৩জন, পুরুষ ভোটার ৫ কোটি ২৪ লাখ ৬২ হাজার ৮৬৫ জন, মহিলা ভোটার ৫ কোটি ১৫ লাখ ৮৯ হাজার ১৮ জন, ভোট কেন্দ্র ৪০ হাজার ১৯৯টি, মোট ভোট কক্ষ ২ লাখ ৬ হাজার ৫৪০টি ধরে সমীকরণ করেছে।

এ ছাড়াও বিভাগওয়ারী পরিসংখ্যানও করা হয়েছে। যা আজকের বৈঠকের বৈঠকে উপস্থাপন করে জাতীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটিসহ বিভিন্ন উপকমিটি গঠন করা হয়েছে।

নতুন ভোটারদের নিয়ে পরিকল্পনা সেল, মিডিয়া সেন্টারসহ প্রয়োজনীয় লজিস্টিক সাপোর্ট সমন্বয় করারও টিম গঠন করার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

বিগত ৪টি জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ফলাফল বিশ্লেষণ করে এই কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। এর অংশ হিসেবে দলের কেন্দ্রীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠনের পাশাপাশি ৮ বিভাগে ‘নির্বাচন পরিচালনা’ কমিটি গঠন করেছে আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সন্ধ্যা ৭টার পরে গণভবনে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *