রাজনীতি

‘বিদেশীরা কি বিএনপিকে ক্ষমতায় বসাবে?’

দেশ আর  জনগণকে অসম্মান করে বিদেশীদের কাছে নালিশ করে বিএনপির সংকীর্ণ মানসিকতা পরিচয় দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে কাদের এ সময় তিনি  বলেন, ‘আপনারা বাংলাদেশের রাজনীতিবিদ। দেশের গণতন্ত্র নিয়ে কোন নালিশ থাকলে আপনারা জনগণের কাছে নালিশ করুন কারণ ভোট দেবে জনগণ। বিদেশীরা কি বিএনপিকে ক্ষমতায় বসাবে? কোন বিদেশী শক্তি ক্ষমতায় বসাতে পারবে না।’

শনিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির ‘ওয়েব সাইট’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

জনগণের প্রতি আস্থা থাকলে বিদেশী গিয়ে নালিশ করে দেশকে ছোট করার মতো ‘ছোট মানসিকতা’র পরিচয় দিতে পারতেন না বলেও অভিযোগ  করেন কাদের।ওবায়দুল কাদের বলেন, শেখ হাসিনা স্বপ্ন নেক্সট জেনারেশন কিন্তু বিএনপির স্বপ্ন নেক্সট ইলেকশন ।  ক্ষমতা ছাড়া এরা কিছুই বুঝে না। বিএনপি নামক দলটি এবং তার দোসররা ক্ষমতাকেন্দ্রিক রাজনীতি করে।

বাংলাদেশের পরিস্থিতি নিয়ে বিদেশীদের কাছে গিয়ে নালিশ করার জন্য বিএনপির প্রতি সমালোচনা করে কাদের আরও বলেন, ‘দেশকে ছোট করবেন না।এবিষয়ে বিএনপির প্রতি আহ্বান জানিয়ে কাদের বলেন, ‘আমি আবারও জনগণের বিবেকের আদালতে এইসব বিষয়ে নালিশ করছি। আমি নালিশ করছি; আমার দেশের জনগণের বিবেকের আদালতে।

বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে প্রকাশিত বইয়ে  বঙ্গবন্ধুর ছবি নেই, এ সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটি আমি জানি না। জেনে মন্তব্য করবো। আমাদের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির বৈঠক আছে। সেখানে নেত্রী কথা বলবেন। সেখানে হয়ত এটি আলোচনা হবে।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম নিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা যদি মনে করি ফেসবুক বন্ধ করলে সব ঠিক হয়ে যাবে, সেটা ঠিক নয়।এটার ভালো এবং খারাপ দুটো দিকই আছে। খারাপ দিকটার মোকাবেলা করতে হবে। সম্প্রতি দুটো আন্দোলনে (কোটা সংস্কার ও নিরাপদ সড়ক) যে অপপ্রচার হয়েছে, সে অপপ্রচারের মুখে আমরা যারা মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি যথাযথভাবে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয়েছি। সাইবার এটাকের কাউন্টার করতে পারিনি।এই অভিজ্ঞতা থেকে বিজ্ঞান প্রযুক্তি উপকমিটি যে উদ্যোগ নিয়েছে, সামনে যেন এ গ্যাপগুলো পূরণ হয়, খেয়াল রাখতে হবে।

কাদের আরও বলেন, আজকের বাংলাদেশের জনগণ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ। উত্তরবঙ্গের ট্রেনযাত্রায় এটা প্রমাণ হয়েছে। ৮টি পথসভায় অন্তত লক্ষাধিক লোকের সমাগম হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে জনগণ বুঝিয়ে দিয়েছে, আমরা শেখ হাসিনার সঙ্গে আছি, তার উন্নয়নে আমাদের আস্থা আছে।

আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি উপ কমিটির চেয়ারম্যান ড. মো. হোসেন মনসুরের সভাপতিত্বে এতে আরও বক্তব্য দেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক প্রকৌশলী মো. আব্দুস সবুর, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেনসহ আরও অনেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *