রাজনীতি

ক্যামেরার সামনে লোক দেখানো কোনো গণসংযোগ হবে না: কাদের

ক্যামেরার সামনে লোক দেখানো কোনো গণসংযোগ হবে না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (১ অক্টোবর) রাজধানীর গুলশান-২ এ নির্বাচন উপলক্ষে সপ্তাহব্যাপী আওয়ামী লীগের গণসংযোগ কর্মসূচির উদ্বোধন করে তিনি এ কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, গণসংযোগে কোনো প্রার্থীর নয়, গণসংযোগ হবে নৌকার। গণসংযোগ পরিচালনা করতে সকল ওয়ার্ড মহানগর জেলা উপজেলা ইউনিয়নে শুরু হওয়া এটাই প্রথম প্রোগ্রাম।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা মারামারি হানাহানি, পাল্টাপাল্টির মধ্যে নেই, বিএনপিসহ অসাম্প্রদায়িক শক্তি যদি সহিংসতা, নাশকতা করে তাহলে আমরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিরোধ করবো। এটাই আমাদের উদ্দেশ্য।’

অক্টোবর মাসে বিএনপি রাজপথ দখলের কর্মসূচির বিষয়ে জানতে চাইলে এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, রাজপথ দখল করতে আসলে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সমুচিত জবাব দেবে।

বিএনপি সাত দফা সম্পর্কে জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, তাদের এই সাত দফা দাবি অযৌক্তিক অবাস্তব এবং কোনো কোনোটি সংবিধানবিরোধী, কাজেই এসব অবাস্তব দাবি। এই সময়ে নির্বাচনের শিডিউল ঘোষণার আর মাত্র এক মাস বাকি। এর মধ্যে দাবি মেনে নেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। তারা নিজেরাও ক্ষমতায় থাকলে এই সময়ের মধ্যে এই দাবিগুলো মেনে নিতে পারতো না।

তিনি বলেন, এই দাবি গুলো তারা শুধুমাত্র বলার জন্য বলছে, তাদের নেতা কর্মীদের চাঙ্গা করতে এইসব আবোল তাবোল বকছে। তারাও জানে এই দাবি গুলো মেনে নেওয়ার কোন যৌক্তিকতা নেই।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দীপু মনির নেতৃত্বে গণসংযোগে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, আন্তর্জাতিক সম্পাদক শাম্মী আহমেদ, কার্যনির্বাহী সদস্য আনোয়ার হোসেন, রিয়াজুল কবীর কাওছার, উপাধ্যক্ষ রেমন্ড আরেং, ঢাকা মহানগর উত্তরে সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাদের খান, কোষাধ্যক্ষ ওয়াকিল উদ্দিন, সহ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আজিজুল হক রানা, বনানী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম জসিম উদ্দিনসহ অনেকেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *