বাংলাদেশরাজনীতি

ঈদুল আযহার আগেই দেশমাতার মুক্তি চাই: বাবুল

ঈদুল আযহার আগেই দেশমাতার মুক্তি চাই: বাবুল

রুশমি আক্তার তাহিরা:

ইতিহাস কথা বলে রাউজানে বাংলাদেশের কিংবদন্তি ফলনের উর্বর ভূমি, বিখ্যাত জনপ্রতিনিধিরা কেবলই কি জন্মায় এই পূন্য ভুমি চট্টগ্রামের শহর ঘেষা উপজেলাটিতে।

এখানে জন্মেছেন ইতিহাসের সেরা রাজনীতিবিদ,কবি,সাহিত্যিকগণের মতো দেশ সেরা ব্যক্তিবর্গ।

আরো যে সকল বিখ্যাতদের জন্য রাউজান গর্বিত।

অনুরূপচন্দ্র সেন –– ভারতীয় উপমহাদেশেরব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম ব্যক্তিত্ব ও অগ্নিযুগের শহীদ বিপ্লবী।

অম্বিকা চক্রবর্তী –– ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম ব্যক্তিত্ব।

আবদুল হক চৌধুরী –– ইতিহাসবিদ।

আল্লামা এম এ মান্নান –– রাজনীতিবিদ, লেখক ও গবেষক।

এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী –– রাজনীতিবিদ।

এবিএম মহিউদ্দীন চৌধুরী –– রাজনীতিবিদ।

এম এন আখতার –– গীতিকার, সুরকার ও সংগীত শিল্পী।

এম এম আবু সাঈদ –– রাজনীতিবিদ ও গবেষক।

গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরী –– রাজনীতিবিদ।

জিয়া উদ্দীন আহমেদ বাবলু –– রাজনীতিবিদ।

ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী –– গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা।

দৌলত কাজী –– মধ্যযুগের কবি।

নবীনচন্দ্র সেন –– কবি।

নির্মলকুমার সেন –– ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম ব্যক্তিত্ব।

নূতন চন্দ্র সিংহ –– নারীশিক্ষার অগ্রদূত ও শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা।

প্রবাল চৌধুরী –– সংগীত শিল্পী।

ফজলুল কবির চৌধুরী –– রাজনীতিবিদ।

ফজলুল কাদের চৌধুরী –– রাজনীতিবিদ।

ফণী বড়ুয়া –– সঙ্গীতজ্ঞ ও কবি গানের শিল্পী।

বিশুদ্ধানন্দ মহাথের –– বৌদ্ধ শাস্ত্রবিদ।

বেণীমাধব বড়ুয়া –– পালি ও বৌদ্ধ শাস্ত্রবিদ।

মাহবুব উল আলম চৌধুরী –– কবি, সাংবাদিক ও ভাষা সৈনিক।

মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরী –– বাংলাদেশের মহা হিসাব-নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রক (সিএজি)।

রোহিণীরঞ্জন বড়ুয়া –– ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম ব্যক্তিত্ব।

শাবানা –– চলচ্চিত্র অভিনেত্রী।

শৈলেশ্বর চক্রবর্তী –– ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম ব্যক্তিত্ব।

সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী –– রাজনীতিবিদ।

সুকুমার বড়ুয়া –– ছড়াকার।

সুবোধ রায় –– চট্টগ্রাম বিদ্রোহের কর্মী।

সূর্য সেন –– ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম ব্যক্তিত্ব।

হরিপদ মহাজন –– চট্টগ্রাম বিদ্রোহের কর্মী।

হামিদ আলী –– কবি।

বিখ্যাতরা বেঁচে থাকে না তাদের কর্ম বেঁচে রয় অনন্তকাল।

রাউজান উপজেলার অন্যতম কৃতি সন্তান নুরুল ইসলাম চৌধুরী বাবুলের জনপ্রিয়তা দিনদিন এই উপজেলাসহ চট্টগ্রাম জেলায় বেড়েই চলছে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে,বাবুল বিএনপির একজন একনিষ্ঠ কর্মী এবং তিনি উত্তর গুজরা ১০ নাম্বার ইউনিয়নের ২বারের চেয়ারম্যান প্রার্থী ছিলেন। একাধিক অভিযোগ রয়েছে উত্তর গুজরা ইউনিয়নের জনসাধারণের মুখে মুখে, স্থানীয়রা অনেকেই অভিযোগ করে বলেন, যদি সুষ্ঠু নির্বাচন হতো তাহলে নুরুল ইসলাম চৌধুরী বাবুল বিপুল ভোটে জয় লাভ করতেন।

এছাড়াও নুরুল ইসলাম চৌধুরি বাবুল একবার অত্র ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবেও দক্ষতার প্রমান দেখিয়েছেন। তিনি বিএনপিকে মনপ্রান দিয়ে ভালোবাসেন।  বর্তমানে প্রায় অর্ধশতাধিক মিথ্যা ও প্রহসনের মামলায় অভিযুক্ত আছেন এই কর্মীবান্ধব ও সংগঠন প্রিয় জনদরদী নেতা বাবুল।

জানা যায় নুরুল ইসলাম চৌধুরী বাবুল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী সেচ্ছাসেবক দলের চট্টগ্রাম জেলা উত্তরের সাংগঠনিক সম্পাদক পদ অলংকৃত করেছেন।

সেচ্ছাসেবক দল চট্টগ্রাম  জেলা উত্তরের ত্যাগী এই নেতারও জন্মস্থল রাউজানের উত্তর গুজরা নামক গ্রামে। তিনি এই গ্রামে একাধিক বার স্থানীয় জনপ্রতিনিধি (ইউপি,সদস্য) নির্বাচিত হন। তরুন জনপ্রিয় ও নিষ্ঠাবান এই নেতার পিতার নাম নুরুল আলম চৌধুরী।

দলের জন্য ব্যাপক ত্যাগ শিকার কারী এই জনপ্রিয় নেতা বাউফল প্রতিদিন অনলাইন পত্রিকার সম্পাদক রুশমি আক্তার তাহিরার সাথে একান্ত আলাপকালে বাউফল প্রতিদিন কে বলেন, আমি দেশনেত্রী বেগম জিয়ার মুক্তি চাই। তার মুক্তি শুধু আমি একা চাই না গোটা দেশের মানুষ দেশ মাতার মুক্তি চায়। ঈদুল আযহার আগেই আমরা দেশবাসী,দেশমাতার মুক্তি দেখতে চাই এই সরকারের নিকট এটা আমার ও আমার দলের আহ্বান। আপনারা সবাই দেশমাতার স্বাস্থ্যর উন্নতির জন্য দোয়া করার অনুরোধ জানাই।

সম্পাদকঃরুশমি আক্তার তাহিরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *