স্বাস্থ্য

হার্টকে সুস্থ রাখতে এড়িয়ে চলুন এই ৫ খাবার

সারা বিশ্ব জুড়েই হৃদরোগীর সংখ্যা বাড়ছে, বাড়ছে হৃদরোগে মৃত্যুর সংখ্যাও। যার মূল কারণই হল অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপন। শহুরে জীবনে সবসময় স্বাস্থ্য মাথায় রেখে চলাও কঠিন। অনিয়মিত ঘুম, সকালে না খাওয়া, আচমকা বেশি খেয়ে ফেলা, ফাস্ট ফুড নির্ভরতা- এই ধরনের জীবনধারা কেবল শরীরের ক্ষতি করে না হৃদয়ের মারাত্মক ক্ষতি করে। এ জন্য আপনি এই ৫টি খাবারের কথা মাথায় রাখুন, পছন্দ হলেও নিজের ও অন্যের হার্টের কথা মাথায় রেখেই এড়িয়ে চলুন এই খাবারগুলো।
এনার্জি ড্রিঙ্কস এবং সোডা
সামান্যতম তেষ্টা পেলেই বা ক্লান্তি লাগলেই অনেকে এনার্জি ড্রিঙ্ক খেয়ে ফেলেন। কিন্তু মনে রাখতে হবে এই এনার্জি ড্রিঙ্কে প্রচুর পরিমাণে ক্যাফিন থাকে, যাতে হার্টের স্বাভাবিক ছন্দ ব্যহত হতে পারে। দেখা দিতে পারে অনিয়মিত হৃদস্পন্দন। একইভাবে, সোডা রক্ত ​​শর্করার মাত্রা বৃদ্ধি করতে পারে। শুধু তাই নয়, সোডা ধমনীর দেয়ালের উপর চাপ সৃষ্টি করে হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়ায়। প্রতিদিনের খাবারে সোডা ব্যবহার মারাত্মক হতে পারে।
চিপস
আট থেকে আশি সবারই পছন্দের মুখরোচক হল চিপস। কিন্তু এই চিপসই আপনার হৃদয়ের জন্য বেশ ক্ষতিকারক। গবেষণায় জানা গেছে, যারা একদিনে ২০০ মিলিগ্রামের বেশি সোডিয়াম খান হৃদরোগের কারণে মৃত্যুর ১০ জনের মধ্যে একজন হয়ে ওঠেন তারা। চিপসে ভরপুর পরিমাণে থাকে ট্রান্স ফ্যাট, সোডিয়াম, কার্বস। চিপসে থাকা অত্যধিক লবণও হার্টের পক্ষে ক্ষতিকারক।
পিজা, নুডলস এবং চাইনিজ খাবার
পিজা এবং চাইনিজ খাবারে চর্বি এবং সোডিয়ামের পরিমাণ বেশি। এই খাবারের সঙ্গে যে সস আমরা খাই সাধারণত তাতেও অত্যধিক পরিমাণে সোডিয়াম রয়েছে। এই দুটিই হার্টের ধমনী ব্লক করার কারণ হতে পারে। গবেষণার মতে, ইনস্ট্যান্ট নুডলসের একটি প্যাকেটে ৮৭৫ মিলিগ্রাম সোডিয়াম পাওয়া যায়। এই পরিমাণ সোডিয়াম সারা দিনের সোডিয়াম খাওয়ার সমতুল্য। অতিরিক্ত লবণ রক্তচাপ রক্তচাপ বাড়ায়, যা হৃদয়ে চাপ বাড়িয়ে তোলে।
চিকেন
চিকেনে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন রয়েছে, কিন্তু আজকাল বাজারে পাওয়া প্রচুর অস্বাস্থ্যকর তেল দিয়ে রাঁধা মুরগির মাংসে প্রচুর পরিমাণে ট্রান্স ফ্যাট থাকে। এটি স্বাস্থ্যের জন্য শুধু বিপজ্জনকই নয় পেটে চর্বি জমার অন্যতম কারণও। এই ধরনের জিনিস আমাদের শরীরের অক্সিডেন্টের পরিমাণ বাড়ায় যা অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলোকে কাজ করতে দেয় না।
কফি
ঘুম নষ্ট করার পাশাপাশি, অত্যধিক কফি শরীরেরও ক্ষতি করে। ব্লেন্ডেড কফিতে প্রচুর পরিমাণে ক্যালোরি এবং চর্বি থাকে। এছাড়া প্রচুর পরিমাণে থাকা ক্যাফিন রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়ায়। কফি ডায়াবেটিক ও হৃদরোগীদের জন্য বিশেষ ক্ষতিকারক।
সূত্র: এনডিটিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *